https://www.totobangla.net/search/label/Android

Blogging Tips: ডোমেইন সেল করে ক্যারিয়ার গড়ুন

ডোমেইন সেল এবং সফল ক্যারিয়ার

সত্যিই কি ডোমেইন সেল (Domain Sell) করে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব? বিষয়টা খুব অদ্ভুত হলেও, আপনি জেনে অবাক হবেন।বর্তমানে অনেকেই এই ডোমেইল সেল করে লক্ষ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করছে।তো অনলাইন থেকে ইনকামের এত বড় একটা সুযোগ আপনি কেন মিস করবেন? তাই আজকে আলোচনায় থাকছে, ডোমেইন সেল করে ইনকাম করার সম্পূর্ন পদ্ধতি সম্পর্কে।

ব্লগিংয়ের শুরুটা যদি ইনকাম দিয়েই হয়।তাহলে তো বিষয়টা মন্দ হয়না।সত্যি কথা বলতে, ব্লগিং এমন একটি সেক্টর, যে সেক্টরের অনেকগুলো ধাপ আছে।আর ব্লগিংয়ের এই প্রতিটা ধাপেই আছে, নিজের সফল ক্যারিয়ার গড়ার মতো বিরাট সুযোগ।আপনি ব্লগিংয়ের যেকোনো একটি ধাপে নিজেকে দক্ষ করে তুলতে পারলেই।খুব সহজেই আপনার নিজের সুন্দর একটা্ ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারবেন।সেটা হতে পারে, এসইও, ডোমেইন সেল কিংবা কন্টেন্ট রাইটিং বা অন্য কিছু।তবে তার জন্য প্রয়োজন শুধু আপনার স্কিলকে ডেভলোপ করা।
ডোমেইল সেল
ডোমেইল সেল
উপরের হেডিংটুকু পড়ে যদি মনে করেন,”ডোমেইন কিনবো আর লক্ষ টাকায় ডোমেইন সেল করবো”।তাহলে কিন্তু অনেক বড় ভুল করবেন।কারন বিষয়টা মোটেও এতো সহজ নয়। প্রথমত, আমি শুরুতেই বলছি ব্লগিংয়ের যে কোনো ধাপেই আগে নিজের স্কিলকে ডেভলোপ করে দক্ষ হয়ে উঠতে হবে। দ্বিতীয়ত, ব্লগিংয়ে ধৈর্য হারালে কখনই সফল হতে পারবেন না।আর আপনার ধৈর্যের ক্ষমতা কতটুকু, তা পরীক্ষা করুন আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ন মনযোগ দিয়ে পড়ার মাধ্যমে।

অনলাইন হোক কিংবা অফলাইন, আপনি যেখানেই ব্যবসা করতে যান না কেন।আপনাকে নিশ্চই একটি নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এগিয়ে যেতে হবে।আপনার ব্যবসায়িক পন্যের মান,পন্যের চাহিদা,পন্যের মূল্য এবং সর্বশেষ আয়ের পরিমান।ব্যবসায় নামার আগে, এ সবকিছু সম্পর্কে গভীরভাবে স্টাডি করতে হবে।নতুবা ব্যবসায় যে কোনো লস খেতে পারেন।

ঠিক তেমনি আপনি যখন ডোমেইন সেল করার ব্যবসায় নামবেন।তখন আপনাকেও কিছু প্রক্রিয়ায় সামনে এগুতে হবে।ডোমেইন বিজনেস করার আগে, আপনার সামনে বেশ কিছু প্রশ্ন চলে আসবে।যেমন, ডোমেইন কি, কোন জায়গা থেকে ডোমেইন কিনবো, কোন ডোমেইনের ভ্যালু বেশি, কোন ডোমেইনের চাহিদা বেশি,কি পরিমান টাকা ইনভেষ্ট করতে হবে ইত্যাদি।

ডোমেইন সেল নিয়ে পূর্ণাঙ্গভাবে লিখতে গেলে একটি আর্টিকেলের মধ্যে বোঝানো সম্ভব নয়।কারন,আর্টিকেলটি অনেক বড় হয়ে যাবে। এর ফলে আপনার আর্টিকেলটি পড়ার আগ্রহ কমে যেতে পারে।তাই চেষ্টা করবো মূল বিষয়গুলো সহজভাবে তুলে ধরার।আর আপনি যে আর্টিকেল পড়ার মাধ্যমে নিজের ধৈর্যের পরীক্ষা দিচ্ছেন।তা কিন্তু ভুলবেন না।

ডোমেইন কি?

ব্লগিংয়ের ভাষায় ডোমেইন হলো প্রতিটা ওয়েবসাইটে থাকা একেকটি এক্সটেনশন (Extension).যদি আপনার ওয়েবসাইটের এড্রেস হয় (www.bdseo.com). তাহলে এখানে (.com) হলো, ডোমেইন ।আর (BDSEO) হলো, সাবডোমেইন (Sub Domain) বা নাম।আমাদের সবার প্রিয় ওয়েবসাইট ফেসবুকের ডোমেইন (www.facebook.com) তো এখানে (www) এবং (facebook) হলো ওয়েবসাইটের নাম বা সাবডোমেইন (Sub Domain), আর (.com) হলো ফেসবুকের এক্সটেনশন (Extension).

এবার আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, ভাই ডোমেইন নাম আর এক্সটেনশন তো বুঝলাম।কিন্তু ”সব ডোমেইনের নামের শুরুতে www থাকে কেন”?

ডোমেইন নেম এ (www) থাকে কেন?

www এর পূর্নরুপ হলো, World Wide Web. তবে প্রতিটা ডোমেইনের শুরুতে  www দিতেই হবে এমনটা নয়।আপনি জানলে অবাক হবেন যে,  ডোমেইনের নাম শুরু হয় মূলত ডান দিক থেকে।আর একটি ডোমেইনের বাম পাশে যা থাকে, তা সবই সাবডোমেইন(Sub Domain). আর এই প্রক্রিয়ায় প্রতিটা ডোমেইনে থাকা, (.com), (.net), (.info), (.org) ইত্যাদি এক্সটেনশনকে রুট (Root) ডোমেইন হিসেবে ধরা হয়।সেদিক থেকে বিবেচনা করলে, www হলো একটি সাবডোমেইন (Sub Domain).

কিন্তু www এর জনপ্রিয়তা এতোটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে, বর্তমানে প্রায় সবগুলো ডোমেইনের শুরুতে এর ব্যবহার করা হচ্ছে।আপনি চাইলে www কে ব্যবহার করেনি এমন অনেক ওয়েবপেজ খুজে পাবেন।যেমন, আমাদের দৈনন্দিন ব্যবহার করা গুগলের একটি ডোমেইন হলো, (mail.google.com) এমন আরও কিছু ডোমেইন আছে, যেমন: (Gmail.com), (Ftp.com), (Dell.com) ইত্যাদি।

তো যাইহোক, যেহুতু আজকের মূল টপিক, ”কিভাবে ডোমেইন সেল করে ক্যারিয়ার গড়বেন”।তাই ডোমেইন পরিচিতি নিয়ে আর বেশি কিছু বলবো না।তবে আমার একটি বাংলা ব্লগ আছে।সেখানে ডোমেইন সম্পর্কে পূর্নাঙ্গ আলোচনা করেছি।


ডোমেইন সেল করার পূর্বে দুটি বিষয় আপনাকে জানতে হবে।
  • কি ধরনের ডোমেইন মানুষ কিনতে চায়।
  • কোন কোন ডোমেইনের চাহিদা বেশি।
তবে এই দুটো প্রশ্নের একটি উওর হবে।উওরটা হলো, ”ভ্যালুয়েবল ডোমেইন”।অনলাইনে ডোমেইন মার্কেটপ্লেসে,যে ডোমেইন গুলো ভ্যালু আছে।শুধুমাএ সেই ডোমেইনগুলোর প্রাধান্য বেশি পায়।তাই শুরুতে আপনাকে ভ্যালুয়েবল ডোমেইন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে।

ভ্যালুয়েবল ডোমেইন কি?

যখন আপনি একটি ডোমেইনের ভ্যালু/মান (Value) নির্নয় করবেন।তখন আপনাকে বেশ কিছু বিষয়ের উপর নজর দিতে হবে।যেমন,
  1. অর্থবোধক ডোমেইন
  2. পপুলার এক্সটেনশন
  3. সংক্ষিপ্ত ও সহজ উচ্চারন ডোমেইন
  4. শব্দের মিল
আমার মনে হয়, উপরের ৪ টি বিষয় সম্পর্কে একটু বিস্তারিত বলা উচিত।যেন, আপনার ডোমেইনের ভ্যালু (Value) নির্ধারনে কোনো সমস্যায় পড়তে না হয়।

💡 অর্থবোধক ডোমেইন: যেসব ডোমেইন নির্দিষ্ট কিছু অর্থ বহন করে।অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতে ঐ ডোমেইন গুলোর প্রচুর চাহিদা রয়েছে।কিছু অর্থবোধক ডোমেইন যেমন, (SSC Result) (Modern Fashion) (Online School) (Online Store) ইত্যাদি।

এবার ভাবুন, এই ডোমেন গুলোর নাম দেখামাএই আপনি ডোমেইনের অর্থ বুঝতে পারছেন কিনা? নিশ্চই বুঝতে পারছেন যে, কারন SSC Result ডোমেইন যু্ক্ত ওয়েবপেজটিতে শুধুমাএ এসএসসির রেজাল্ট পাবলিশ করা হবে।আবার Online Store ডোমেইন যুক্ত ওয়েবপেজটি একটি অনলাইন শপ।

মূলত এই টাইপের ডোমেইনগুলোকে বলা হয় অর্থবোধক ডোমেইন।কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আপনি আমার এই পোষ্টটি যে সময়ে দেখছেন।তার কয়েক বছর আগেই এমন অর্থবোধক ডোমেইন গুলো কেউ না কেউ কিনে নিয়েছে।আর সবচেয়ে আশ্চর্য বিষয় হলো, আপনি এখন যদি (Bodna.com)  ডোমেইনও কিনতে যান।তবে গিয়ে দেখবেন, কেউ না কেউ সেই ডোমেইনটিও কিনে নিয়েছে।তাহলে ভেবে দেখুন আপনি কতটা পিছিয়ে আছেন।

💡 পপুলার এক্সটেনশন: একটি ডোমেইন অর্থবোধক হওয়ার পাশাপাশি তার সাথে পপুলার এক্সটেনশন ও যুক্ত থাকতে হবে।কারন, অনলাইন মার্কেপ্লেসে আপনি যখন একটি ডোমেইন সেল করতে চাইবেন।তখন বায়ার আপনার ডোমেইনের অর্থবোধকতা চেক করার পর আপনার ডোমেইন এক্সটেনশনের দিকে নজর দিবে।

অনলাইনে (.com) এক্সটেনশন ছাড়াও আরও অনেক প্রকারের এক্সটেনশন পাবেন।যেমন, (.net), (.org), (.info), (.xyz), (.com.bd) ইত্যাদি।তবে বিশ্বাস করুন ,আমি একসময় ডোমেইন বলতে শুধু (.com extension) কেই বুঝতাম।পরে জানতে পারি যে, (.com) ছাড়াও আরও অনেক এক্সটেনশন আছে।

তবে আপনাকে একথা মানতে হবে, অনলাইনে সব এক্সটেনশনের মধ্যে (.com) Extension সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়।এর পরে আসে বাকি ডোমেইন এক্সটেনশন গুলো।আর এই কথাটিতে হয়তবা অনেকে দ্বিমত পোষন করবেন।যে, গুগলের র‌্যাংকিংয়ে মূলত উপরে আলোচিত কয়েকটি এক্সটেনশনকে বেশি প্রাধান্য দেয়।

যাদের এই কথাটিতে দ্বিমত রয়েছে।তাদেরকে বলবো, আমি এ পর্যন্ত যা কিছু গুগলে সার্চ করেছি।তাদের মধ্যে উপরোক্ত এক্সটেনশনযুক্ত ডোমেইনগুলোই চোখে পড়ছে।

💡 সংক্ষিপ্ত ও সহজ উচ্চারন: আপনি সেল করার জন্য একটি ডোমেইন সিলেক্ট করলেন।ধরুন, সেই ডোমেইনের নাম দিলেন, ”Bangladesh Online Multimedia”. এবার একটু ভাবুন, মানুষ কি এতবড় Domain Name সহজে উচ্চারন করতে পারবে? আবার বেশিরভাগ সময় মানুষ আপনার এই ডোমেইনটির নাম ভুলেও যেতে পারে।কিন্তু এই নামটি যদি আর একটু ছোট হতো যেমন, (BD Media). তাহলে নামটাও অনেক ছোট হলো, তার সাথে উচ্চারনের দিক থেকেও সহজ হলো।

আর সবচেয়ে ভালো হয়, যদি আপনি একশব্দের ডোমেইন Collect করতে পারেন।এক শব্দের কিছু ডোমেইনের উদারহরন যেমন, Facebook, Youtube, Twitter, Quora ,Linkedin ইত্যাদি ডোমেইনগুলো দেখুন।অনলাইনে রাজত্ব করা সবচেয়ে বড় বড় প্ল্যাটফর্মগুলো কমবেশি প্রায় সবাই একশব্দের ডোমেইন ব্যবহার করছে।যেন সহজে উচ্চারন করা যায় এবং সহজে মনে রাখা যায়।

💡 শব্দের মিল: ভ্যালুয়েবল ডোমেইন নিয়ে উপরে আলোচিত ৩ টি পয়েন্টকে সম্পূর্ন ভুল হিসেবে প্রমান করবে।যদি আপনার ডোমেইনে শব্দের মিল থাকে।এখানে শব্দের মিল বোঝাতে আমি দুটো পাশাপাশি শব্দের মিলকে বুঝিয়েছি।উদাহরন হিসেবে বলা যায়, আজকের বহুল আলোচিত (Tiktok) এর কথা।এখানে দেখুন দুটো শব্দ পাশাপাশি থাকার পরও উচ্চারনের দিক থেকে একটা বেশ মিল আছে।এমন আরও কিছু ডোমেইন যেমন, (Ping Pong),(Ding Dong),(Took Taak) ইত্যাদি।

তো যাইহোক, ভ্যালুয়েবল ডোমেইন কি বা কোন ডোমেইন গুলোর ভ্যালু (Value) আছে।এই স্বল্প আলোচনায় হয়তবা বুঝে গেছেন।তবে এবার প্রশ্ন আসতে পারে, আচ্ছা আপনি যে এই ডোমেইনগুলো কিনবেন।কিন্তু কারা আপনার কাছ থেকে এই ডোমেইনগুলো বেশি দামে কিনবে? তো চলুন এবার সে বিষয়ে জেনে নেয়া যাক।

কার কাছে ডোমেইন সেল করবেন?

আপনি লেখাপড়া শেষ করে চাকরির জন্য প্রচুর চেষ্টা করলেন।কিন্তু কোনোভাবেই একটি চাকরির সন্ধান পেলেন না।তাই সিন্ধান্ত নিলেন একটা ব্যবসা করবেন।ধরে নিলাম, আপনি বিবেচনা করে দেখলেন একটি ল্যাপটপের দোকান দিবেন।আর বর্তমানে তো ডিজিটাল যুগ, তাই কেউ কোনো পন্য কেনার আগে অনলাইনে রিভিউ দেখে নেয়।

তো অনলাইনে যদি আপনার নিজস্ব ল্যাপটপ রিলেটেড একটি ওয়েবসাইট থাকে।যেখানে আপনার বিক্রি করার মতো বিভিন্ন ল্যাপটপের রিভিউ দেয়া থাকবে।তাহলে আপনার রিভিউ দেখে প্রায় অনেক মানুষ আপনার দোকান থেকে ল্যাপটপ কিনতে আগ্রহী হবে ।তাইনা?

তাই সিন্ধান্ত নিলেন যে, ”Laptop Store” নামের একটি ডোমেইন কিনে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন।কিন্তু গিয়ে দেখলেন আপনার আগেই কেউ সেই নামের ডোমেইনটি কিনে নিয়েছে।অবশেষে সেই নামের শেষে ”Laptop Store BD” যুক্ত করে দেখলেন যে সেই ডোমেইনটিও কিনে নিয়েছে।তো এখন উপায়?

আপনি আর উপায় না পেয়ে ”Laptop Store” নামের সামনে পেছনে আরও কিছু শব্দ বা সংখ্যা (Laptop Store BD 24) বসিয়ে ডোমেইন খুজে পেলেন।কিন্তু দেখা গেলো, সেই ডোমেইনটি খুবই বিশ্রি লাগছে।মানে ডোমেইনটি ভ্যালুয়েবল মনে হচ্ছে না।তো এবার আসবে মূল বিষয়।পরিবেশটা সুন্দর থাকলেও আপনাকে কিন্তু ঠিকই হৈচৈ করতে হবে।তা নাহলে খেলা জমবে না।


আপনি তখন সেই ডোমেইন কেনা মানুষগুলোর সাথে যোগাযোগ করলেন।তাদের কাছে থাকা ডোমেইনটি কিনে নেয়ার জন্য।এখন তারাই ডিসিশন নিয়ে বলবে আসলে তাদেরকে কত টাকা দিলে তাদের কাছে থাকা ডোমেইনটিকে আপনার হাতে দিবে।আর আপনার তো সেই ডোমেইনটি খুবই প্রয়োজন।তাই বাধ্য হয়ে বেশি টাকা অফার করে সেই ডোমেইনটি কিনতেই হচ্ছে।

তো মোটামুটি এই পর্যায়েই ডোমেইন সেল করা হয়।আশা করি কার কাছে ডোমেইন সেল করবেন।তা ভালোভাবেই বুঝতে পেরেছেন।তো এবার আমরা জানবো, আপনি যে ডোমেইনগুলো রেজিষ্ট্রেশন করবেন।কেউ যদি সেই ডোমেইনগুলো কিনতে চায়।তাহলে কিভাবে তারা আপনার সাথে যোগযোগ করবে?

কিভাবে ডোমেইন সেল করবেন?

বর্তমানে অনলাইনে অনেকগুলো ডোমেইন বাই-সেল (Domain Buy-Sell) করার প্ল্যাটফর্ম আছে।নিচে লিষ্ট আকারে সেই প্ল্যাটফর্ম গুলো দেওয়া হলো,
  1. Godaddy Auction
  2. Flippa Marketplace
  3. Sedo Marketplace
  4. Namepros Forum
  5. Efty Website
  6. eBay Marketplace
  7. BrandBucket Website
  8. Above Website
  9. SnapNames Website
তবে বাংলাদেশেও একটি নতুন ডোমেইন বাই-সেল করার জন্য প্ল্যাটফর্ম তৈরি হয়েছে।আপনি চাইলে খুব সহজে সেই প্ল্যাটফর্ম থেকে ডোমেইন বাই-সেল করতে পারেন।বাংলাদেশি সেই প্ল্যাটফর্মটির নাম (Dodeus).

উক্ত এই প্ল্যাটফর্ম গুলোতে আপনি আপনার ডোমেইনটি এড করে রাখবেন।তারপর আপনার ডোমেইনটি কারও প্রয়োজন হলে তারা আপনার সাথে ইমেইল/ফোন কলের মাধ্যমে যোগাযোগ করবে।

সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরন:
  • কোনো ডোমেইন কেনার আগে অবশ্যই ডোমেইন ট্রেডমার্ক লাইসেন্স (Trade Marke) সম্পর্কে জেনে নিবেন।আপনার কেনা ডোমেইনটি যদি কোনো ট্রেডমার্ক যুক্ত ডোমেইনের সাথে মিলে যায়।তাহলে আপনার জেল কিংবা অর্থদন্ড হতে পারে।ডোমেইন ট্রেডমার্ক সম্পর্কে জানতে চাইলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।
  • একটি ডোমেইন সেল করার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করলেন।কিন্তু দেখা গেলো ১ বছরেও সেই ডোমেইনটি সেল হলো না।তখন আপনাকে পুনরায় রিনিউ করতে হবে।আর ডোমেইন বিজনেসে করতে হলে ডোমেইন বছরের পর বছর রিনিউ করার মতো সামর্থ্য নিয়ে এ বিজনেসে নামতে হবে।

কিছু কথা: 
যারা আজকের আর্টিকেলটির শুরু থেকে এ পর্যন্ত আসতে পেরেছেন।তাদেরকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ।কারন আপনি আপনার ধৈর্যের পরীক্ষার সফল হয়েছেন।আপনি ডোমেইন সেল করার ব্যবসা করুন আর না ই করুন।কিন্তু আজকে যে আপনার নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস জন্মাতে পেরেছেন।এই আত্মবিশ্বাসকে ধরে রাখতে পারলে আপনি একদিন অনেক ভালো কিছু করতে পারবেন।



Name

Android,4,Bangla Tech News,4,Blogger Templates,1,Blogging Tips,19,How to earn money,7,Question and Answer,1,Technology Tips,20,
ltr
item
Toto Bangla: Blogging Tips: ডোমেইন সেল করে ক্যারিয়ার গড়ুন
Blogging Tips: ডোমেইন সেল করে ক্যারিয়ার গড়ুন
ডোমেইন সেল করেও কি ইনকাম সম্ভব? যদি তাই হয়, তাহলে কিভাবে ডোমেইন সেল করে ক্যারিয়ার গড়বেন? ব্লগিংয়ের শুরুটা যদি ইনকাম দিয়ে শুরু হয়।তাহলে তো মন্দ হয়না।
https://1.bp.blogspot.com/-dAV7YV7VwT4/XfjD1yfDtyI/AAAAAAAABUo/sO-FhMGoFXoFsSgq3EQvkk6C3jD7SYBCQCLcBGAsYHQ/s1600/%25E0%25A6%25A1%25E0%25A7%258B%25E0%25A6%25AE%25E0%25A7%2587%25E0%25A6%2587%25E0%25A6%25B2-%25E0%25A6%25B8%25E0%25A7%2587%25E0%25A6%25B2.jpg
https://1.bp.blogspot.com/-dAV7YV7VwT4/XfjD1yfDtyI/AAAAAAAABUo/sO-FhMGoFXoFsSgq3EQvkk6C3jD7SYBCQCLcBGAsYHQ/s72-c/%25E0%25A6%25A1%25E0%25A7%258B%25E0%25A6%25AE%25E0%25A7%2587%25E0%25A6%2587%25E0%25A6%25B2-%25E0%25A6%25B8%25E0%25A7%2587%25E0%25A6%25B2.jpg
Toto Bangla
https://www.totobangla.net/2019/12/Domain-buy-sell.html
https://www.totobangla.net/
https://www.totobangla.net/
https://www.totobangla.net/2019/12/Domain-buy-sell.html
true
2751192689318996488
UTF-8
Loaded All Posts Not found any posts VIEW ALL Readmore Reply Cancel reply Delete By Home PAGES POSTS View All RECOMMENDED FOR YOU LABEL ARCHIVE SEARCH ALL POSTS Not found any post match with your request Back Home Sunday Monday Tuesday Wednesday Thursday Friday Saturday Sun Mon Tue Wed Thu Fri Sat January February March April May June July August September October November December Jan Feb Mar Apr May Jun Jul Aug Sep Oct Nov Dec just now 1 minute ago $$1$$ minutes ago 1 hour ago $$1$$ hours ago Yesterday $$1$$ days ago $$1$$ weeks ago more than 5 weeks ago Followers Follow THIS PREMIUM CONTENT IS LOCKED STEP 1: Share to a social network STEP 2: Click the link on your social network Copy All Code Select All Code All codes were copied to your clipboard Can not copy the codes / texts, please press [CTRL]+[C] (or CMD+C with Mac) to copy