.breadcrumbs{display:none !important;}

মোবাইল গরম হওয়ার কারন। মোবাইল গরম হলে করনীয় কি?

মোবাইল গরম হওয়ার কারন। মোবাইল গরম হলে করনীয় কি?
মোবাইল গরম হওয়ার কারন কি?
মোবাইল গরম হয় কেন 

আমরা সাধারনত সবাই স্মার্টফোন  ব্যবহার করে থাকি।এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারী বেশিভাগ লোকের সাথে এই বিষয়টি পরিচিত।চলতে চলতে হঠাৎ করে আমাদের স্মার্টফোনটি অতিরিক্ত পরিমানে গরম হয়ে যায়।যখন আমরা আমাদের ফোনে ভারী কোনো গেম কিংবা বড় সাইজের কোনো এপস ইনস্টল করে ওপেন করি। তখন ফোন গরম হওয়ার প্রবণতা বেশী দেখা যায়।
তবে স্মার্টফোনটি গরম হলে ভয় পাবার দরকার নেই।নির্দিষ্ট কিছু কারন ছাড়া ফোন গরম হওয়াটা স্বাভাবিক।আর আজকে আমি এ বিষয়ে আলোচনা করবো।

আমাদের স্মার্টফোন গুলো কেন গরম হয়।আর গরম হলে আমাদের করনীয় কি। এই দুইটি বিষয় নিয়েই বিস্তারিত বলবো।

স্মার্টফোনগুলো গরম হওয়ার কারন কী?

বর্তমানে বাজারে যে স্মার্টফোনগুলো পাওয়া যাচ্ছে।সেই স্মার্টফোনগুলো অনায়াসেই কিছুটা কম্পিউটারের সমান কাজ করে থাকে।এ বিষয় সম্পর্কে হয়তবা আপনিও জেনে থাকবেন।তাহলে আপনি এ বিষয়টাও জেনে থাকবেন যে,কম্পিউটারে যে কাজ গুলো করা হয় তা সবকিছু নিয়ন্ত্রন করে প্রসেসর।ঠিক সেভাবেই আমাদের ফোনগুলোকেও প্রসেসর নামের একটি ডিভাইজ নিয়ন্ত্রন করছে।
ফোন গরম হলে করনীয় কি
মোবাইল গরম হয়ে যাওয়ার কারন
আমাদের ফোনে থাকা ব্যকগ্রাউন্ড এ রানিং এপস কিংবা আমরা যদি কোনো এপস কিংবা গেম ইনস্টল করি ।তখন এপস বা গেম চালু হওয়ার সাথে সাথে প্রসেসরও চালু হয়।আমাদের যতো বেশি এপস এ কাজ করবো কিংবা যতোবেশি গেম খেলবো ।আমাদের স্মার্টফোনেরর প্রসেসরটি ততো বেশি তাপ উৎপন্ন করবে।কিন্তু স্মার্টফোনের সমস্যা হলো সেই উৎপন্œ তাপকে বের করে দেয়ার কোনো ব্যবস্থা নেই। যেমনটা আমাদের ব্যবহৃত কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে থাকে।প্রসেসর কর্তৃক এ উৎপন্ন তাপকে বের করে দেয়ার জন্য কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে কুলিং ফ্যান নামে একটি ফ্যান লাগানো থাকে।প্রসেসরের গরম তাপে কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে কোনো প্রকার বিস্ফোরন হয়ে কোনো যন্ত্রাংশ নষ্ট না হয়। সেজন্য সেই তাপকে কুলিং ফ্যানের সাহায্য সহজেই বের করে দেয়া হয়।

কিন্তু আফসোসের বিষয় আমাদের স্মার্টফোনগুলোতে সেরমক কোনো সিস্টেম নেই।কম্পিউটারের মতো তাপ বের করে দেয়ার জন্য কোনো কুলিং সিস্টেম না থাকলেও,আমাদের স্মার্টফোনটি যেন গরম না হয় সেজন্য আলাদা পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়।স্বাভাবিক কাজকর্মের সময় প্রসেসরগুলো অতিরিক্ত গরম না হয় সে দিকের উপর লক্ষ্য রেখেই প্রসেসর গুলো তৈরি করা হয়। পাশাপাশি প্লাস্টিক কিংবা ধাতব পদার্থ গুলো তাপ পরিবাহী হওয়ার ফলে বর্তমানে বাজারে স্মার্টফোনগুলো সাধারনত ধাতব বা কাঁচের তৈরি হয়ে থাকে।যেন প্রসেসর কর্তৃক উৎপন্ন তাপকে সহজেই বের করে দিতে পারে।
আমাদের স্মার্টফোনগুলোতে কাজের পরিমানের সাথে সাথে তাপ উৎউপন্নের মাএা বাড়া কমা করতে থাকে।সেজন্য ফোন কোম্পানি গুলো নতুন কোনো ফোন বের করার আগে সে দিকটা ভেবে থাকে।উন্নত দেশগুলোতে কিছু কিছু স্মার্টফোন বের হয়েছে যে ফোনগুলোর তাপ বের করে দেয়ার জন্য ওয়াটার কুলিং ব্যবহার হয়।কিন্তু আমাদের ব্যবহার করা ফোনগুলোতে সেরকম কোনো সিস্টেম না থাকায় আমাদের স্মার্টফোনগুলো একটুতেই গরম হয়।

স্মার্টফোন গরম হওয়ার সাধারন কিছু বিষয় নিয়ে এতক্ষন আলোচনা করলাম।উপরোক্ত কারনগুলো ছাড়াও কিছু  যান্ত্রিক এুটির কারনেও আমাদের স্মার্টফোনগুলো গরম হয়ে থাকে। যার ফলে অনেক সময় নানারকম বড় ধরনের দূর্ঘটনাও ঘটে যেতে পারে।সেক্ষেএে আমাদের কিছু বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখা উচিত ।

স্মার্টফোন গরম হলে কি করবেন?

আপনার ফোনটি গরম হলে কি করা উচিৎ সেটা নির্ভর করবে আপনার ফোনটি কেন গরম হচ্ছে তার উপর।সেটা নিয়ে নিচে পয়েন্ট আকারে বিস্তারিত আলোচনা করছি।

১.স্বাভাবিক অবস্থায় ফোন গরম হলে 

এ বিষয় নিয়ে আমি আগেই আলোচনা করেছি।যখন আমরা কোনো ভারী এপস কিংবা গেম চালু করি তখন ফোন গরম হলে ।সেটা স্বাভাবিক গরম হওয়া বলে।এর ফলে চিন্তার কোনো কারন নেই।যদি আপনি বেশি সময় ধরে আপনার ফোনটি ব্যবহার করেন।সেক্ষেএেও আপনার ফোনটি গরম হতে পারে।

২.ফোন চার্জ করার সময় ফোন গরম হলে

আমরা যখন আমাদের ফোনকে চার্জে লাগাই তখন ফোনে থাকা ব্যাটারির মধ্যে কিছু রাসায়নিক বিক্রিয়া হতে থাকে। যার ফলে তখন ফোনটি গরম হতে পারে।এ সময় ফোন গরম হলেও চিন্তার কোনো কারন নেই।
তবে আপনার ফোনটি অতিরিক্ত গরম হলে কিছু বিষয় আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
লক্ষ্যনীয় বিষয়:-
               যখন আপনার ফোনটি চার্জে লাগানোর সময় অতিরিক্ত গরম হবে।তখন যথাসম্ভব চার্জিং থেকে আপনার ফোনটি খুলে ফেলুন।কিছুক্ষন পর আবার পুনরায় ফোনটি চার্জে লাগিয়ে দিন। তারপরও যদি আপনার ফোনটি গরম হয় তাহলে আপনার চার্জারটি পরিবর্তন করুন।মনে রাখবেন চার্জারের ক্ষেএে ফোনের অরজিনাল চার্জার ব্যবহার করা উওম।অরজিনাল চার্জার না থাকলে যথাসম্ভব ফোনের সাথে মিলিয়ে ভালো ব্যন্ডের চার্জার ব্যবহার করুন।
এরপরেও যদি আপনার ফোনটি চার্জিয়ের সময় গরম হয়।তাহলে আপনার ফোনের কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করুন।
মোবাইল গরম হওয়ার কারণ
মোবাইল গরম না হওয়ার উপায় 

৩.বেশি সময় রোদে ফোন রাখলে

ফোন গরম হওয়ার অনেক কারনের মধ্যে আরেকটি কারন হলো তীব্র রোদেও ফোন ব্যবহার করা।অনেক সময় প্রখর রোদেও আমাদের ফোন ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়।আর আমাদের ফোনগুলো প্লাস্টিক কিংবা স্টিল বডি হওয়ার ফলে খুব সহজেই সূর্য থেকে তাপ শোষন  করে গরম হয়।
তবে এই সময় ফোন যদি গরম হয় তাহলে চিন্তা করার কোনো কারন নেই।সেই সময় আপনার ফোনটি গরম হলে আপনি আপনার ফোনটিকে ছায়াযুক্ত  স্থানে রেখে  দিলে আপনার ফোনটি গরম হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পাবে।

৪.ফোনের  অপারেটিং সিস্টেম আপগ্রেড করলে

সাধারনত এই কারনটিও স্বাভাবিক পর্যায়ে পড়ে।যখন আমরা ফোন আপগ্রেড করে থাকি তখন প্রচুর পরিমানে ব্যকগ্রাউন্ডে এপস রানিং হতে থাকে।যার ফলে প্রসেসরের উপর প্রচুর চাপ পড়ার কারনে ফোন গরম হয়।এ সময় প্রসেসর তাপ উৎপন্নের  সাথে সাথে ঐ প্রসেসরের সাথে সংযুক্ত থাকা ফোনকেও গরম করে  ফেলে।
অনেক সময় ফোন আপগ্রেড করার কিছুদিন পরও ফোন তুলনামূলকভাবে আগের চেয়ে বেশি গরম হতে থাকে।তাহলে সে সময় ৭-১০ দিন অপেক্ষা করুন । তারপরও কাজ না হলে আপনার কাছাকাছি কোনো কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করুন।

৫.কোনো কারন ছাড়াই ফোন গরম হয়ে গেলে

আমাদের ব্যবহার করা স্মার্টফোনগুলো গরম হওয়ার মধ্যে এই কারনটি মারাত্মক একটি কারন।আবার হঠাৎ করে ফোনের ব্যাটারি ফুলে উঠার সাথেও অনেকে পরিচিত আছেন।অনেক সময় এই ব্যাটারি ফুলে উঠা বা ফেপে যাওয়ার ফলে বড় ধরনের বিস্ফরনের মতো ঘটনাও ঘটতে পারে।
তাই যথাসম্ভব আপনি সেই ব্যাটারিটি পরিবর্তন করুন।পারলে ব্যাটারি পরিবর্তনের আগ পর্যন্ত ফোনটিকে বন্ধ রাখুন।যতো দ্রুত পারেন কাস্টমার কেয়ারের সাথে যোগাযোগ করুন।এতে তাদের সহায়তা নিলে দ্রুত সমাধান পাবেন।

আপনার স্মার্টফোনটি কেন গরম হয় এবং আপনার স্মার্টফোনটি গরম হলে করনীয় কি।আশা করি সে বিষয়ে এতক্ষনে জেনে গেছেন।ফোন গরম হওয়ার প্রধান কারন হলো প্রসেসর এবং ফোনে সংযুক্ত থাকা ব্যাটারি।যদি প্রসেসরের কারনে ফোন গরম হয় তাহলে সেটি স্বাভাবিক বিষয়। কিন্তু ব্যাটারির কারনে ফোন গরম হলে সেক্ষেএে আপনাকে উপরোক্ত পদক্ষেপগুলো অবলম্বন করা উচিৎ।

আশা করি পোস্টটি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। উপরোক্ত বিষয়গুলো বাদে যদি ফোন গরম হওয়ার আলাদা কোনো কারন  থাকে,তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।আমরা যথাসাধ্য পোষ্টকে আপডেট করার চেস্টা করবো।
কোনো কিছু জানতে বা জানাতে  চাইলে আমাদের ইমেইল করতে পারেন।আমরা যতো দ্রুত পারি আপনাদের ফিডব্যাক দেয়ার চেস্টা করবো। 
   ধন্যবাদ 


New Post

Thanks For Read the Article